বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:২৩ পূর্বাহ্ন

খবরের শিরোনাম :
রংপুর আইএইচটি ক্যাম্পাস থেকে চুরি যাওয়া মালামাল সহ ৩ চোর গ্রেফতার তিলোত্তমা নগরী গড়ার স্বপ্ন রংপুরকে….মেয়র মোস্তফা রংপুর মেডিকেলের বিভিন্ন অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ তদন্তে দুদক বর্তমান পরিস্থিতিতে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব হবে বলে মনে হয় না….জি এম কাদের পৌরসভার জনবল দিয়ে রংপুর সিটি কর্পোরেশন চলছে- মেয়র মোস্তফা জিএম কাদের চেয়ারমান হিসাবে দায়িত্ব পালনে বাধা না থাকায় রংপুর নগরীতে জাতীয় পার্টির মিষ্টি বিতরণ। নামাজ পড়ে এসে দেখেন ৫ লাখ টাকা নেই সততার সাথে নিষ্ঠার সাথে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ নিয়ে নিরলস ভাবে কাজ করবো.. রসিক মেয়র মোস্তফা হারাগাছে ডাম্পট্রাকের চাপায় পথচারী নারী নিহত কাউনিয়ায় পুকুরে ফুটবল তুলতে গিয়ে পানিতে ডুবে শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু
নামি দেখি হামার গাড়ি আরেকটা গাড়ির ভেতর ঢুকি আছে

নামি দেখি হামার গাড়ি আরেকটা গাড়ির ভেতর ঢুকি আছে

নিউজ ডেক্সঃ

রংপুরের তারাগঞ্জে দুটি বাসের মুখোমুখি সংর্ঘষের হতাহতের ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী এনতাজুল ইসলাম। তিনি ঠাকুরগাঁওগামী কুমিল্লা থেকে ছেড়ে আসা সাইমুন পরিবহনের যাত্রী ছিলেন। বাড়ি ঠাকুরগাও জেলার রুহিয়া উপজেলা রাজাগাও গ্রামে। তার দাবি, সাইমন পরিবহন একটি ট্রাককে ওভারটে করতে হঠাৎ ডান দিকে চাপলে তৃপ্তি পরিবহনের সঙ্গে মুখোমুখি সংর্ঘষ ঘটে।

তারাগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কথা হলে এনতাজুল ইসলাম জানান, তারা চার-পাঁচজনের একটি দল ঠাকুরগাঁওয়ের রুহিয়া উপজেলার রাজাগাও এলাকা থেকে বেশ কিছু দিন আগে কুমিল্লায় ধান রোপণের কাজে যান। সেখানে কাজ শেষে সাইমুন পরিবহনে বাড়ি ফিরছিলেন। আজ মঙ্গলবার মহাসড়কের চিকলী দোয়ালীপাড়া মোড়ে পৌঁছালে হঠাৎ একটি ট্রাককে ওভারটেক করতে ডান দিকে চাপলে আরেকটি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি এনজাতুলের সঙ্গী ইব্রাহিম মিয়া বলেন, ‘বাবা, কিছু বুঝার গোতে বিকট শব্দ হয়। মাথা ফাটি গেইছে। গাড়ি থাকি নামি দেখি হামার গাড়ি আরেকটা গাড়ির ভেতর ঢুকি আছে। যারা পেছনোত আছলো তারা ভালো আছে। আল্লাহ রহমত আছলো বাঁচি গেছুন। মুই কুমিল্লা গেছনু ধান কাটি।’

ঘটনাস্থলের পাশে মহাসড়কের ধারে দোয়ালীপাড়া গ্রামের মুমিন মিয়ার চা-বিস্কুটের দোকান। তার দোকান থেকে ১০ হাত দক্ষিণে দুর্ঘটনা ঘটে। মুমিন মিয়া বলেন, দোকানে খুলি চায়ে তাপ দিচ্ছিলাম। এমন সময় সাইমন পরিবহনের বাসটি রানিং অবস্থায় একটি ট্রাককে ওভার টেক করার জন্য ডানে চাপলে তৃপ্তি পরিবহনের সঙ্গে মুখোমুখি সংর্ঘষ ঘটে। আশেপাশের লোকজন দৌড়ে গিয়ে গাড়িতে থাকা লোকজনদের উদ্ধার করি। পুলিশ, ইউএনও আর ফায়ার সার্ভিসোক খবর দেই।

দুর্ঘটনার সময় মহাসড়কের পাশে জমি কাজ করছিলেন ওই এলাকার নজরুল ইসলাম। তিনি বলেন, তৃপ্তি পরিবহনের কোনো দোষ নাই। সব দোষ ঢাকার বড় গাড়ি খানের।

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কে তারাগঞ্জের দোয়ালীপাড়া মোড়ে এ সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর মহাসড়কের দুই পাশে যানবাহনের দীর্ঘ লাইন তৈরি হয়।

কুমিল্লা থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী ঠাকুরগাঁওগামী সাইমন পরিবহনের সঙ্গে সৈয়দপুর থেকে ছেড়ে আসা তৃপ্তি পরিবহনের বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুইজন ও তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একজন মারা যান। আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত তিনজনের মধ্যে দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। একজন কালাম হোসেন (৪০) তার বাড়ি দিনাজপুরের চিরিরবন্দর রানিপুর গ্রামে। আরেকজন মুসিলম মিয়া তিনি একই জেলার পাবর্তীপুরের সোনাপুকুর বানিয়াপাড়ার বাসিন্দা। দুজনেই তৃপ্তি পরিবহনের হেলপার ছিলেন।

তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো. মাহাবুব মোরশেদ বলেন, নিহত তিনজনের মধ্যে দুজনের পরিচয় শনাক্ত করা গেছে। তারা তৃপ্তি পরিবহনের হেলপার। পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। অন্য জনের পরিচয় শনাক্তের কাজ চলছে।

তারাগঞ্জ উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাসেল মিয়া বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত পরিবারগুলো জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০ হাজার করে টাকা মরদেহ দাফন কাফনের জন্য দেওয়া হয়েছে।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

© ২০২০-২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এনপিনিউজ৭১.কম
Developed BY Rafi It Solution