বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৫২ পূর্বাহ্ন

খবরের শিরোনাম :
সড়কে দাড়িয়ে মেয়র প্রার্থী মোস্তফার জন্য দোয়া রসিক নির্বাচনের মনোনয়ন জমা দিলেন মোস্তফা অভাবের সংসারে বার্ষিক পরিক্ষা দেয়ার দ্বিমত থাকা শয়নের পরিক্ষার সুযোগ করে দিলো পাগলাপীর বাইক রাইডার্স টিম। মোস্তাফাকে রংপুর সিটি নির্বাচনে লাঙ্গলের মেয়র প্রার্থী ঘোষণা রওশন এরশাদের রসিক নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোস্তফা রংপুর মহানগর জাপার মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত রসিক নির্বাচনে বর্তমান মেয়র সহ ৭ জনের মেয়র পদে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ রসিক নির্বাচনের মনোনয়ন কিনলেন মোস্তফা মোস্তফা জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পাওয়ায় স্বস্তিতে নেতাকর্মীরা রংপুর বিভাগীয় আর্জেন্টিনা ফ্যানস ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা মেয়র মোস্তফা
বগুড়ায় শ্যালকের বাসর ঘরে ঢুকে নববধূকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে ভগ্নিপতি কারাগারে

বগুড়ায় শ্যালকের বাসর ঘরে ঢুকে নববধূকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে ভগ্নিপতি কারাগারে

নিউজ ডেক্সঃ

বগুড়ার ধুনটে বাসর ঘরে স্বামীর সহযোগিতায় নববধূকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে দুলাভাইয়ের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় থানায় মামলা করেছেন ভুক্তভোগীর বাবা। শুক্রবার রাতে মামলা করেন তিনি। পরে অভিযান চালিয়ে রাতেই মামলার প্রধান আসামি আলমগীর হোসেনকে (৩০) গ্রেফতার করে পুলিশ। আজ শনিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আলমগীর হোসেন সিরাজগঞ্জ সদরের ভুরভুড়িয়া গ্রামের রোস্তম আলীর ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি ওই নববধূকে বিয়ে করে নিজের বাড়িতে তোলেন বর। ওই দিন রাত সাড়ে ১১টার দিকে নবদম্পতি বাসর ঘরে ঢোকেন। এ সময় শরবতের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে নববধূকে পান করান বরের দুলাভাই আলমগীর। কিছুক্ষণ পর ঘুমিয়ে পড়েন নববধূ। এরপর স্বামীর সহযোগিতায় রাতভর ওই নববধূকে ধর্ষণ করেন আলমগীর।

পরের দিন সকালে নববধূ ঘুম থেকে উঠে দেখেন আলমগীর তার সঙ্গে ঘুমিয়ে আছেন। আর একই ঘরের পাশের বিছানায় ঘুমিয়ে আছেন তার স্বামী। বিষয়টি শ্বশুর-শাশুড়ি ও স্বামীকে জানালেও তারা কর্ণপাত করেননি, উল্টো নববধূকে মারধর করেন। একইভাবে আরো কয়েক দিন তাকে ধর্ষণ করেন আলমগীর। পরবর্তীতে নববধূ তার বাবাকে মোবাইল ফোনে ঘটনাটি খুলে বলেন। এরপর তাকে স্বামীর বাড়ি থেকে নিজের বাড়ি নিয়ে যান বাবা। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে থানায় মামলা করেছেন নববধূর বাবা। মামলায় আলমগীর হোসেন ছাড়াও নববধূর স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়িকে আসামি করা হয়েছে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা। তিনি বলেন, ‘মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে। এছাড়া নববধূর শারীরিক পরীক্ষার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এরপর আদালতে তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হবে।’

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

© ২০২০-২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এনপিনিউজ৭১.কম
Developed BY Rafi It Solution